1. কিভাবে নকল জামদানী চিনবেন ?

    জামদানী শাড়ী কি? 

    ============================================= 
    জামদানী শাড়ী সম্পূর্ণ হাতে তৈরি রেশম এবং তুলার সুতার সংমিশ্রনে প্রস্তুত এক ধরনের শাড়ী যা মোঘল আমল থেকে এখনো সর্বজন সমাদৃত । জামদানী শাড়ীর ডিজাইন গুলো জ্যামিতিক, ওজনে হালকা এবং ব্যাবহারে অনেক আরামদায়ক হয়। তাই অভিজাত মহিলাদের কাছে এই শাড়ীর কদর অনেক।

    জামদানী শাড়ী কত প্রকার? 
    ============================================= 
    জামদানী শাড়ী ২ প্রকার 
    ১। হাফ সিল্ক জামদানী – যার আড়াআড়ি সুতাগুলো হয় রেশমের আর লম্বালম্বি সুতাগুলো তুলার হয়। 
    ২। ফুল কটন জামদানী- যা সম্পূর্ণ তুলার সুতার তৈরি।

    কিভাবে নকল জামদানী চিনবেন
    ======================================== 
    অতি দুঃখজনক হলেও সত্যি যে, বাজারে নকল জামদানী শাড়ীতে ভরা। মার্কেটে নকল জামদানী শাড়ীকে বলা হয়- সিল্ক জামদানী অথবা টাঙ্গাইল জামদানী । যার দ

    Read more
  2. ঢাকাইয়া জামদানি শাড়ি ও মুল্য

    ঢাকাইয়া জামদানি শাড়ি ৭৫০ থেকে শুরু এবং ২০০০০ টাকা পর্যন্ত আছে আমাদের অনলাইন পেজ-এ। শাড়ির মুল্য বৃদ্ধি পায় কাজের উপর। শাড়ির শুতাতে তেমন একটা পার্থক্য নেই তবে সুতা মোটা ও চিকন হতে পারে আর মার দিলে সেই সুতা একটু শক্ত খশখশে হয় আর অল্প মার দিলে শাড়িটা নরম দেখায়। 

    ৭৫০ থেকে ১০৫০ টাকার শাড়িতে নরমাল কাজ থাকে এবং পুরু শাড়িতেই কাজ পাবেন।

    ১৩০০ থেকে ১৭৫০ টাকার শাড়িতে আপনি আঁচল থেকে সুরু করে ৬ হাত কাজ পাবেন আর বাকি ৬ হাত ফাঁকা।

    ২০০০ থেকে ২৭০০ টাকার শাড়িতে ৭ থেকে ৮ হাত কাজ পাবেন কিন্তু হাল্কা হাল্ক কাজ থাকবে।

    ৩০০০ থেকে ৪৫০০ টাকার শাড়ি গুলোর কাজ থাকবে না বেশি না কম। দেখতে ভাল লাগবে বা মোটামুটি ভাল।

    ৫০০০ থেকে ৭৫০০ টাকার শাড়ি গুলতে অনেক কাজ থাকবে।

    ৮০০০ থেকে ১৫০০০ হাজার বা ২০০০০ টাকার শাড়ি গুলতে কাজের নকশাতে বা নকশার জন্য মুল্যটা বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। আপনি এখ

    Read more